রক্তাক্ত জসিম ভাই: সতর্কতার জোরালো আহ্বান

শরীফ মুহাম্মদ ।। 

১৯৭৫’এর পর বাংলাদেশে পরিচিত কোনো আলেমকে ছুরিকাঘাত করে কিংবা গুলি করে কোন আততায়ীর পক্ষ থেকে হত্যা করার চেষ্টা এটাই উল্লেখযোগ্য বড় ঘটনা। গত কয়েকবছরে ঢাকা এবং ঢাকার বাইরে কোনো কোনো মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিনকে সামাজিক কিংবা ব্যক্তিগত কারণে হত্যা করার ঘটনা খবরে এসেছে।

বিজ্ঞাপন

দেশে আলেম সমাজের ভেতরে এবং বাইরে নানা রকম অস্বস্তি ও অস্থিরতা বিরাজ করছে। সাধারণভাবে আলেম বিদ্বেষী দেশি-বিদেশি নানা রকম আওয়াজ এবং চক্রান্তও দেশে লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এ অবস্থায় লালবাগ জামেয়ার মুহাদ্দিস আমাদের প্রিয় জসিম ভাইকে রাজপথে চলার সময় পেছন থেকে ছুরিকাঘাতের ঘটনাটি ভয়ঙ্কর। এ ঘটনার পেছনে কী আছে আমার জানা নেই। কিন্তু এর সামনে অনেক রকম অশনি সংকেত ও বিপর্যয়ের পদধ্বনি অপেক্ষা করছে বলে আমি মনে করি। গত দুই তিন দশকে ভারত-পাকিস্তানের টার্গেট কিলিংয়ের মধ্য দিয়ে নিহত হওয়া অনেক বিখ্যাত আলেমের খবর আমরা জানি।

এদেশেও কি বিদেশি কোনো গোয়েন্দা সংস্থার ইন্ধনে আলেমদের মধ্যে টার্গেট কিলিংয়ের রক্তাক্ত খেলা শুরু হতে যাচ্ছে! আমার পক্ষে অনুমান করা কঠিন। ভয় পাওয়ার কিছু নেই, কিন্তু সর্তকতা সংযম ও পরিস্থিতি বিশ্লেষণের প্রয়োজনীয়তা অস্বীকার করা যায় না। আল্লাহ ভরসা।

আমি শুধু মাওলানা জসিম ভাইয়ের সুস্থতার দোয়া করেই ক্ষান্ত দেওয়া সঠিক মনে করি না। এ বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ সতর্কতা ও তত্ত্ব তালাশ করা দায়িত্বশীলদের বড় দায়িত্ব। এর সঙ্গে কে কেন জড়িত হলো, খুঁজে বের করে শাস্তি নিশ্চিত করাও দায়িত্ব। তবে বাস্তব প্রমাণ ও ভিত্তি ছাড়া নিজেদের মধ্যেও তীব্র ও ঝাঁঝালো শত্রুতার অন্ধ খেলায় লিপ্ত হওয়াও বিলকুল অসমীচীন মনে করি। সবাইকে সতর্ক হওয়ার আহবান জানাই।

-এসএন