কোস্ট গার্ডকে বিদেশি জাহাজে গুলি করার আনুষ্ঠানিক অনুমতি দিল চীন

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: সমুদ্রপথে জাতীয় সার্বভৌমত্ব রক্ষায় প্রয়োজনে বিদেশি জাহাজকে গুলি করার জন্য কোস্ট গার্ডকে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুমতি দিয়েছে চীন। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) এ সংক্রান্ত একটি আইন পাস করেছে দেশটি। এর মধ্য দিয়ে দক্ষিণ চীন সাগর ও আশেপাশের জলসীমা নিয়ে বিবাদপূর্ণ দেশগুলোর মধ্যে উত্তেজনা আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সামুদ্রিক সার্বভৌমত্বের প্রশ্নে পূর্ব চীন সাগর এলাকায় জাপানের সঙ্গে এবং দক্ষিণ চীন সাগর এলাকায় কয়েকটি দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশের সঙ্গে চীনের বিবাদ রয়েছে। এসব এলাকায় অন্য দেশ থেকে আসা মাছ ধরার নৌকা দেখলেই তাদেরকে তাড়ানোর জন্য কোস্ট গার্ডকে পাঠিয়ে দেয় বেইজিং। মাঝে মাঝে কোস্ট গার্ডের ধাওয়া খেয়ে কোনও কোনও নৌকা ডুবেও যায়। আর এবার দেওয়া হলো গুলি করার অনুমতি।

বিজ্ঞাপন

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার চীনের শীর্ষ আইনি কর্তৃপক্ষ দ্য ন্যাশনাল পিপল’স কংগ্রেসের স্থায়ী কমিটি শুক্রবার কোস্ট গার্ড ল’ নামে একটি আইন পাস করেছে। এতে বলা হয়েছে, ‘সাগরে বিদেশি সংস্থা কিংবা ব্যক্তির দ্বারা জাতীয় সার্বভৌমত্ব, সার্বভৌম অধিকার ও অধিক্ষেত্র যদি অবৈধভাবে লঙ্ঘিত হয় তবে অস্ত্রের ব্যবহারসহ প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ নিতে পারবে কোস্ট গার্ড।’

মৎস্য সম্পদসহ খনিজ আহরণের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বলে বিবেচিত দক্ষিণ চীন সাগর দিয়ে বছরে প্রায় ৫ লাখ কোটি ডলারের পণ্য পরিবহন হয়ে থাকে। পুরো সমুদ্রপথকে নিজেদের অঞ্চল বলে দাবি করে চীন। তবে আরও কয়েকটি দেশও ওই অঞ্চলের ওপর সার্বভৌমত্ব দাবি করে। দেশগুলো হচ্ছে মালয়েশিয়া, ব্রুনাই, ইন্দোনেশিয়া, তাইওয়ান, ফিলিপাইন ও ভিয়েতনাম। যুক্তরাষ্ট্র আনুষ্ঠানিকভাবে ওই অঞ্চলের দাবি না করলেও আন্তর্জাতিক সমুদ্রপথ হিসেবে ওই অঞ্চলে নিজেদের সামরিক উপস্থিতি ধরে রাখতে চায় তারা।

ইজে