শীত মৌসুমে পানি কম পান করার ক্ষতি

ওমায়ের আহসান ।।

বলা হয়, পানির অপর নাম জীবন। পানির সর্বাধিক ব্যবহার মানুষকে অসংখ্য রোগবালাই থেকে রক্ষা করতে সহায়তা করে। গরমের সময় আমরা প্রচুর পরিমাণ পানি পান করলেও শীতে বেশ অবহেলা করি অনেকে। শীত এলেই যেন পানি পান করতে ভালো লাগে না আমাদের। যার ফলে দেখা দেয় শারীরিক নানা সমস্যা।

বিজ্ঞাপন

শীত মৌসুমে পানির কম ব্যবহার নানা সমস্যার কারণ হতে পারে। শীতে শুষ্ক ও আর্দ্র আবহাওয়ার কারণে শরীরে বেশি পরিমাণে পানির প্রয়োজন হয়।

পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি মানবদেহের জন্য পুষ্টিকর খাবারের মতোই গুরুত্বপূর্ণ। ডায়েট অফ দ্য টাউন ক্লিনিকের পুষ্টিবিদ আবির আবু রাজিলি  শীতকালে বিশেষত অধিক পরিমাণে পানি পান করার উপর জোর দেন।

অভ্যন্তরীণ তাপমাত্রা হ্রাস করার ক্ষেত্রে পানির গুরুত্ব

মানবদেহের অভ্যন্তরীণ তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে পানি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বিশেষত শীতকালে পানির ব্যবহার বেশি বেশি করা উচিত। হিটারের সামনে অতিরিক্ত বসে থাকার কারণে দেহে পানির ঘাটতি তৈরি হয়।

ক্লান্তি দূর করতে

ক্লান্তি, অলসতা এবং এই জাতীয় সমস্যা মানব প্রকৃতিকে ক্লান্ত করে তোলে। এধরনের মানুষ ব্যাপকভাবে মৌসুমী রোগব্যাধি যেমন পানির অভাবজনিত সাধারণ ঠান্ডার অভিযোগ করে। বেশি বেশি পানির ব্যবহার এ জাতীয় সমস্যাগুলি দূর করতে সহায়তা করে।

 মানুষের ত্বকের জন্য পানির প্রয়োজনীয়তা 

মানুষের ত্বক অভ্যন্তরীণ এবং বাহ্যিকভাবে সবচেয়ে সংবেদনশীল হিসাবে বিবেচিত। সাধারণত মহিলারা শীতকালে শুষ্ক ত্বকের অভিযোগ করেন। বিশেষত যখন ঠান্ডা আবহাওয়া তীব্র হয়। ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখতে পানি যতটা সম্ভব বেশি বেশি ব্যবহার করা উচিত।

বিপাক বাড়াতে পানির প্রয়োজন

মানুষের দেহে তাপমাত্রা মাঝারি পর্যায়ে রাখতে পানির ব্যবহার অতি গুরুত্বপূর্ণ। যে কোনও খাবারের চেয়ে পানির গুরুত্ব অধিক। দেহের কোষগুলিতে পানির খুব প্রয়োজন হয়। এই প্রয়োজনটি লেবুর পানি দিয়েও পূরণ করা যেতে পারে।

বিষাক্ত পদার্থ বের করতে

দিনে কমপক্ষে আট গ্লাস পানি পান করলে শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ হয়ে যায়। এটি শুষ্কতার বিরুদ্ধেও লড়াই করে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী রাখে। এটি সাধারণ সর্দি এবং এই জাতীয় অন্যান্য রোগ থেকেও রক্ষা করে।

খাবার হজমে পানির ব্যবহার  

খাদ্য হজমের জন্য দৈনিক নির্দিষ্ট পরিমাণে পানির প্রয়োজন হয়। বদহজমযুক্ত লোকেরা প্রচুর পরিমাণে পানি দিয়ে এই রোগের চিকিৎসা করতে পারেন। এমনকি প্রতিদিন এক গ্লাস হালকা গরম পানি দ্বারাও এক্ষেত্রে আশ্চর্যজনক ফলাফল পাওয়া যায়।

সুস্থতা আল্লাহ পাকের মহান নেয়ামত। একজন সুস্থ মুমিন আল্লাহর অনুগ্রহে হাজারো ইবাদত করার সুযোগ লাভ করে। তাই আসুন, শীত মৌসুমে বেশি বেশি পানি পান করে শরীরকে সুস্থ রাখি।

-এসএন