উর্দু ভাষার বিখ্যাত কবি মির্জা গালিব

আবু ইমাম ।।

উর্দু ভাষার বিশ্ববিখ্যাত কবি মির্জা আসাদুল্লাহ গালিবের আজ ২২৩ তম জন্মদিন।

বিজ্ঞাপন

মির্জা গালিব ২৭ ডিসেম্বর ১৭৯৭ সালে আগ্রায় জন্মগ্রহণ করেন। ৫ বছর বয়সে পিতার মৃত্যুর পর গালিবের লালন-পালন তার চাচা করেন।

চার বছর পর তার চাচারও ইন্তেকাল হয়ে যায়।

মির্জা গালিবের ১২ বছর বয়সে উমারা বেগমের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। এরপর তিনি তার পিতৃপুরুষের শহর ছেড়ে দিল্লিতে স্থায়ীভাবে বসবাস করতে চলে আসেন।

গালিব প্রথমদিকে ফার্সিতে কবিতা রচনা করতেন। ওই সময় ‘আসাদ’ ছিল তার ডাকনাম। তবে আগ্রা থেকে দিল্লি চলে আসার পর তিনি উর্দুতেও কবিতা রচনা করেন।

মির্জা গালিব উর্দু কাব্যের এমন মহা সম্পদ ছিলেন, যা সারা জীবন খরচ করলেও হয়ত শেষ হবে না।

গালিব ১৫ ফেব্রুয়ারি ১৮৬৯ সালে দিল্লিতে দুনিয়া থেকে বিদায় নেন। কিন্তু উর্দু সাহিত্যে কালজয়ী অবদানের কারণে তিনি যুগযুগ ধরে অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবেন।

গালিব একাধিক গ্রন্থ রচনা করেছেন। তন্মধ্যে ‘দিওয়ানে গালিব’, গালিবের চিঠিপত্র, ‘শরহে দিওয়ানে গালিব’, ‍কুল্লিয়াত’, মাকতূবাতে ফারসী গালিব’ প্রভৃতি বিখ্যাত।

মির্জা গালিবের জীবনী ও সাহিত্যকর্ম পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, বেশভূষা ইসলামিক হলেও তার জীবন পুরোপুরি ইসলামিক ছিল না। আমাদের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের মতো তার রচিত অগণিত ইসলামী মূল্যবোধ ও আধ্যাত্মবাদের কবিতা রয়েছে। কিন্তু সাহিত্যের নানা দিকের ন্যায় ব্যক্তিগত জীবনেও তিনি বিতর্কমুক্ত ছিল না। আল্লাহ তাআলা তার মাগফিরাত করুন। আমীন।

-এসএন

বিজ্ঞাপন