সরকার গুমের সংস্কৃতি চালু রেখে জনগণের ওপর নির্যাতন করছে: ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি।

ইসলাম টাইমস ডেস্ক:  মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আমরা বাংলাদেশে যেটা প্রত্যক্ষ করছি গত এক দশক ধরে এই গুমের সংস্কৃতি দিয়ে সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকছে। যেহেতু তারা জনগণ থেকে আজকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। সেই কারণে তারা গুমের সংস্কৃতি চালু রেখে ভয় দেখিয়ে ত্রাস সৃষ্টি করে জনগণের ওপর নির্যাতন করছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, এখন পর্যন্ত তাদের ৫ জন নেতাকর্মী নিখোঁজ রয়েছেন। তাদেরকে তুলে নিয়ে গেছে সাদা পোষাকধারী ব্যক্তিরা আবার অনেক জায়গায় পুলিশ। দল ও তাদের পরিবার থেকে খোঁজ করা হলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তা অস্বীকার করছে। এরফলে তাদের পরিবার এবং আমরা উদ্বিগ্ন অবস্থায় আছি।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, এই সরকার শুধু জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েনি তারা পুরোপুরিভাবে দেউলিয়া হয়ে গেছে। তারা রাষ্ট্রের সমস্ত প্রতিষ্ঠানগুলোকে দলীয়করণ করেছে। আমি সরকারের আহবান জানাব, অবিলম্বে গুম হওয়া নেতা-কর্মীদের খুঁজে বের করা হোক, যাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে আটক করা হয়েছে তাদেরকে মুক্তি দেয়া হোক এবং মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করা হোক।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমি সরকারের কাছে আহবান জানাব, কোনো ব্যক্তি যদি নিখোঁজ হয় তাহলে তার দায়িত্ব সম্পূর্ণভাবে সরকারের। বিশেষ করে হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে যাওয়ার পরে। হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে বেরিয়েছে তারপরে সাদা পোষাকধারী গোয়েন্দারা তাকে তুলে নিয়ে যাবে। কোন দেশ বাস করছি আমরা? প্রশ্ন বিএনপি মহাসচিবের।

শুক্রবার নিজ বাসভবন থেকে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে দলের মির্জা ফখরুল একথা বলেন।

-এনটি