হাজী সেলিমের ছেলের বিষয়ে তদন্তে কেউ প্রভাব খাটাতে পারবে না: ডিএমপি

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে ও ৩০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইরফান সেলিমের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার তদন্তে প্রভাব খাটানোর কোন সুযোগ নেই। কেউ চাইলেই তাতে কোনো প্রভাব খাটাতে পারবে না বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহাঃ শফিকুল ইসলাম।

মঙ্গলবার রাজধানীর তেজগাঁও থানা কমপ্লেক্সে আয়োজিত নারী ও শিশুদের দ্রুততম সেবার জন্য ‘কুইক রেসপন্স টিম’ এর উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

ডিএমপি কমিশনার বলেন, মামলার তদন্তে প্রভাব থাকার কোনো সুযোগ নেই। চাইলেও এখানে কেউ প্রভাব খাটাতে পারবে না। আমরা দ্রুততম সময়ে এই মামলার তদন্ত করবো এবং অভিযোগপত্র জমা দেবো।

তিনি আরও বলেন, মামলাটি খুব গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে। সচরাচর হত্যাকাণ্ডের ঘটনা থাকলে উপ-পুলিশ কমিশনার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন না। কিন্তু এই ঘটনার পরপরই রমনা বিভাগের ডিসি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ বিষয়ে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন।

পুরান ঢাকার এক আসনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর। তারা শ্বশুর একরামুল করিম চৌধুরী নোয়াখালীর সংসদ সদস্য।

গত রোববার ঢাকার ধানমণ্ডিতে সংসদ সদস্যের স্টিকারযুক্ত হাজী সেলিমের একটি গাড়ি থেকে নেমে নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্ট মো. ওয়াসিফ আহমেদ খানকে মারধর করা হয়।

এ ঘটনায় সোমবার ধানমণ্ডি থানায় দায়ের করা মামলায় ইরফান সেলিম ছাড়াও হাজী সেলিমের প্রোটোকল অফিসার এবি সিদ্দিক দিপু, ইরফানের দেহরক্ষী মোহাম্মদ জাহিদ এবং গাড়িচালক মিজানুর রহমানের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত পরিচয় আরও তিনজনকে আসামি করে মামলা করে সশস্ত্রবাহিনীর ওই কর্মকর্তা।

আসামিদের বিরুদ্ধে বেআইনিভাবে পথরোধ করে সরকারি কর্মকর্তাকে মারধর, জখম ও প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ আনেন মামলার বাদী ওয়াসিফ।