কাতারের ওপর চাপিয়ে দেওয়া অবরোধ অবসানের ইঙ্গিত দিল সৌদি

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স ফয়সাল বিন ফারহান কাতারের ওপর আরোপ করা অবরোধ অবসানের ইঙ্গিত দিয়েছেন ।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গে এক বৈঠকের পর এই অবরোধ অবসানের বিষয়ে অগ্রগতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রিন্স ফয়সাল। সূত্র: আলজাজিরা।

বিজ্ঞাপন

২০১৭ সালের জুনে উপসাগরীয় দেশ কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে সৌদি আরব, মিসর, বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। দোহার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদ ও মুসলিম ব্রাদারহুডের মতো রাজনৈতিক দলকে সমর্থন দেওয়ার অভিযোগ এনে কাতারের ওপর স্থল, নৌ ও আকাশ পথে অবরোধ আরোপ করে ওই চার দেশ।

বৃহস্পতিবার এক ভার্চুয়াল আলোচনায় সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স ফয়সাল বিন ফারহান বলেন, ‘আমরা সমাধান খুঁজতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। কাতারের ভাইদের সঙ্গে যুক্ত হতে আমরা এখনো আশাবাদী। আশা করছি তারাও আমাদের সঙ্গে যুক্ত হতে আগ্রহী। তবে চারটি দেশের বৈধ নিরাপত্তা উদ্বেগকেও আমাদের স্বীকার করে নিতে হবে। আমরা মনে করি খুব দ্রুত একটি সমাধানের মাধ্যমে সামনে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ আছে।’

কাতারের বিরুদ্ধে ওই চার দেশ ‘সন্ত্রাসবাদ’ সমর্থনের এবং বছরের পর বছর ধরে অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার অভিযোগ এনেছিল। দোহার বিরুদ্ধে আঞ্চলিক প্রতিদ্বন্দ্বী ইরানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতারও অভিযোগ ছিল।

তবে, কাতার এই দাবিগুলোকে অস্বীকার করেছে।

ট্রাম্প প্রশাসন কাতারের ওপর আরোপ করা অবরোধ অবসানের ও ইরানের বিরুদ্ধে উপসাগরীয় দেশগুলোকে একত্রিত করার পথ সুগম করছে।

কাতারের সঙ্গে চার দেশের বিরোধ নিরসনে আগেও বেশ কয়েকবার উদ্যোগ নেওয়ার পরেও তা ব্যর্থ হয়। কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি জানান, তার দেশ এই সংকট নিরসনে আলোচনায় বসতে প্রস্তুত। তবে, যেকোনো সমাধানের ক্ষেত্রে তার দেশের সার্বভৌমত্বকে সম্মান জানাতে হবে বলেও জোর দেন তিনি।

বিজ্ঞাপন