দীর্ঘ যুদ্ধের ফলে ইয়েমেনে দ্রুত বাড়ছে বাস্তুহারা মানুষের সংখ্যা

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: দীর্ঘ যুদ্ধের ফলে ইয়েমেনে বাস্তুহারা মানুষের সংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত শুক্রবার (৯ অক্টোবর) হুথি বিদ্রোহীদের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশটিতে বর্তমানে ৪০ লাখের বেশি মানুষ বাস্তুহারা হয়ে মারাত্মক মানবিক পরিস্থিতিতে বসবাস করছে। হুথির মানবিক বিষয়ক শাখা সুপ্রিম কাউন্সিল ফর দ্য ম্যানেজমেন্ট এন্ড কোর্ডিনেশন অব হিউম্যান এফেয়ার্স (এসসিএমসিএইচএ) এই প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে।

এতে বলা হয়, ইয়েমেনে বাস্তুহারা পরিবারের সংখ্যা ৬ লাখ ৬ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। আগস্ট পর্যন্ত দেশটিতে বাস্তুহারা মানুষের সংখ্যা ৪১ লাখ। এসব মানুষ মারাত্মক মানবিক পরিস্থিতিতে বসবাস করছে। দেশজুড়ে দীর্ঘ সংঘাতের কারণে এই সংখ্যা আরো বৃদ্ধি পেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

প্রতিবেদনে বলা হয়, আর্থিক তহবিলের অভাবে গত সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘের ১৫টি মানবিক সহায়তা কার্যক্রম বন্ধ হয়েছে। যার কারণে এখানে বিপর্যয় আরো কয়েকগুণে বেড়েছে। ইয়েমেনের বাস্তুহারা শিবিরগুলোতে খাদ্য, ওষুধের চরম সংকট দেখা দিয়েছে। যার কারণে বাড়ছে রোগ বালাই।

এ প্রসঙ্গে ইয়েমেনে নিযুক্ত জাতিসংঘের কর্মকর্তা লিসে গ্র্যান্ডি বলেন, জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে ইয়েমেনে সর্বমোট ৪৫টি মানবিক সহায়তা কার্যক্রম পরিচালিত হতো। কিন্তু সেপ্টেম্বরে ১৫টি বন্ধ হয়ে গেছে। এখন আমাদের ৩০টি দিয়ে সব পরিচালনা করতে হচ্ছে। আসছে দিনগুলোতে সংকটে পড়া এই মানুষগুলোর ভোগান্তি আরো বাড়বে বলে আশঙ্কা করছি।

মিডেল ইস্ট মনিটর বলছে, বিগত মাসগুলোতে জাতিসংঘ থেকে অভিযোগ আসছে যে, তারা ইয়েমেনে মানবিক সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য যথেষ্ট আর্থিক তহবিল গঠন করতে পারছে না। যারা সংস্থাটিতে আর্থিক সহায়তা দিয়ে আসছে তাদের বেশ কয়েকবার তাগাদাও দেয়া হয়েছে।

গত ৬ বছর ধরে ইয়েমেনে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ করে আসছে ক্ষমতাসীন সরকার ও হুথি বাহিনীর সদস্যরা। এর ফলে দেশটির ৮০ শতাংশ মানুষ চরম বিপদে পড়েছে। এখন পর্যন্ত বিভিন্ন সংঘাতে ১ লাখ ১২ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। জাতিসংঘের তথ্যমতে, এদের মধ্যে ১২ হাজার বেসামরিক নাগরিক।

বিজ্ঞাপন