নিরপরাধ জাহালমকে ১৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে ব্র্যাক ব্যাংককে নির্দেশ

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: ভুল আসামী হয়ে বিনা দোষে কারাভোগ করতে বাধ্য হওয়া নিরীহ পাটকল শ্রমিক জাহালমকে ১৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার জন্য ব্র্যাক ব্যাংককে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি এআএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ বুধবার এই আদেশ দেন।

বিজ্ঞাপন

এক মাসের মধ্যে ব্র্যাক ব্যাংককে এই অর্থ পরিশোধ করতে হবে।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এবিএম আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাসার সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানিয়েছেন।

‘ভুল আসামি’ হয়ে দুদকের ২৬ মামলায় তিন বছর কারাগারে থাকার পর হাইকোর্টের আদেশে গত বছরের ৩রা ফেব্রুয়ারি মুক্তি পান জাহালম।

আবু সালেক নামে একজনের বিরুদ্ধে সোনালী ব্যাংকের প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা জালিয়াতির ২৬টি মামলা রয়েছে। সেই মামলায় আবু সালেকের বদলে কারাভোগ করতে বাধ্য হন জাহালম।

এ নিয়ে গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হওয়ার পর হাইকোর্ট তাকে মুক্ত করার আদেশ দেন।

কে এই জাহালম ?

টাঙ্গাইলের নাগরপুরের জাহালম ছিলেন একজন পাটকল শ্রমিক এবং কাজ করতেন নরসিংদীর একটি পাটকলে।

দুর্নীতি দমন কমিশনের এ মামলার জের ধরে নরসিংদী থেকে তাকে আটক করা হয়েছিলো আবু সালেক হিসেবে।

ব্যাংক জালিয়াতির মামলায় একজন আসামী ছিলো আবু সালেক।

পরে মানবাধিকার কমিশনের তদন্তে বেরিয়ে আসে যে জাহালম নিরপরাধ এবং তিনি আবু সালেক নন।

এর ধারাবাহিকতায় পরে আদালতের নির্দেশে সব মামলা থেকে অব্যাহতি পাওয়ার পর চলতি বছরের ৩রা ফেব্রুয়ারি মুক্তি পান জাহালম।

সোনালী ব্যাংকের প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা জালিয়াতির অভিযোগে আবু সালেক নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ৩৩টি মামলা করে দুদক। কিন্তু তদন্ত কর্মকর্তাদের ভুলে সালেকের বদলে তিন বছর ধরে কারাগারে টাঙ্গাইলের জাহালমকে কাটাতে হয়।

এ বিষয়ে ‘স্যার, আমি জাহালম, সালেক না’ শীর্ষক একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে একটি জাতীয় দৈনিক। সেটি বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চের নজরে আনেন আইনজীবী অমিত দাশগুপ্ত।