তরুণীকে হোটেলে আটকে রেখে পালাক্রমে ধর্ষণ, ইসরাইলের বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: ইসরাইলের একটি হোটেলে আটকে রেখে লাইনে দাঁড়িয়ে ১৬ বছর বয়সী এক তরুণীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করা হয়েছে। ডেইলি মেইল জানিয়েছে, একজন ভিতরে প্রবেশ করে তাকে ধর্ষণ করছে। রুমের বাইরে লাইন দিয়ে অপেক্ষমান আরো প্রায় ২৯ জন। তারা একের পর এক পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে ওই বালিকাকে। এ খবর কয়েকদিন ধরেই ইসরাইলের বাতাসে ভাসছে। কিন্তু যখন সব ফাঁস হতে শুরু করেছে, মানুষজন ধর্ষিতাকে সমর্থন করতে শুরু করেছে। এর ফলে ইসরাইলের বিভিন্ন শহরে হাজার হাজার মানুষ প্রতিবাদ বিক্ষোভ করছেন।

ফলে বাধ্য হয়ে ইসরাইলের প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী এ ঘটনায় হস্তক্ষেপ করেন। ধর্ষণে জড়িত থাকার অভিযোগে এরই মধ্যে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে দু’জনকে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডেইলি মেইল।

বিজ্ঞাপন

এতে বলা হয়, লোহিত সাগর উপকূলে ইলাত অবকাশ যাপন কেন্দ্রে এই ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। ধর্ষকদের বয়স ২০ উত্তীর্ণ। তারা ওই কিশোরীকে তার বেডরুমে আটকে রেখে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। মিডিয়ায় এ খবর প্রচারিত হওয়ার পর লোকজন তেল আবিব, জেরুজালেম সহ বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ করেছে। ধর্ষিতা প্রথমে গত সপ্তাহে ইলাত পুলিশে এ বিষয়ে রিপোর্ট করে। কিন্তু তখন বিষয়টি তেমন প্রচার পায় নি। কিন্তু আস্তে আস্তে তথ্য যখন বেরিয়ে আসতে থাকে, তখন বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ শুরু হয়। এক পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এই ঘটনাকে হতাশাজনক বলে আখ্যায়িত করেন।

ধর্ষিতা তার সমর্থনকারীদের মাধ্যমে বলেছেন, তাকে অনলাইনেই নির্যাতন করা হচ্ছে। তার ভাষায়, আমাকে সমর্থন দিচ্ছেন বহু মানুষ। তাই আমি শক্তি পেয়েছি। কেউ জানেন না, আমার ওপর দিয়ে কি ঝড় বযে গেছে। তাহলে কিভাবে আমাকে সুবিচার দেবেন।