মাদরাসা খোলার ব্যাপারে প্রশাসনের সাথে যোগাযোগের জন্য হাইআর সাবকমিটি গঠন

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: করোনা পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকা কওমি মাদরাসার কিতাব বিভাগের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করার ব্যাপারে প্রশাসনের সাথে যোগাযোগ করা হচ্ছে। এজন্য সম্মিলিত কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড হাইআতুল উলয়ার পক্ষ থেকে একটি সাব কমিটি গঠন করা হয়েছে। মাদরাসা খোলার পর তাৎক্ষণিক বৈঠকের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় পরীক্ষা এবং অন্যান্য বিষয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

আজ সোমবার (১৩ জুলাই) হাইআতুল উলয়ার কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। ইসলাম টাইমসকে এ সব তথ্য নিশ্চিত করেন বোর্ডের দপ্তর সম্পাদক মাওলানা অছিউর রহমান।

বিজ্ঞাপন

হাইআতুল উলয়ার ভেরিফাইড ফেইসবুক পেজে বোর্ডের দপ্তর সম্পাদক মাওলারা অছিউর রহমানের বরাতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মাওলানা অছিউর রহমান বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন মাদরাসা বন্ধ থাকায় শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হয়েছে। শিক্ষার্থীদের অনেক ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতি পুষিয়ে নিতে কত দ্রুত মাদরাসা খুলে দেওয়া যায় এ বিষয়ে বোর্ডের দায়িত্বশীলরা চিন্তা করছেন। সেজন্য প্রশাসনের সাথে অব্যাহতভাবে যোগাযোগ করা হচ্ছে। আগে বিচ্ছিন্নভাবে যোগাযোগ করা হলেও এখন হাইআতুল উলয়ার পক্ষ থেকে একটি সাব কমিটি গঠন করা হয়েছে। তারা যোগাযোগ করবেন।

আরও পড়ুন: হাইআতুল উলয়ার বৈঠক: মাদরাসা খোলার পর দ্রুততম সময়ের মধ্যে পরীক্ষা

তিনি জানান, আর মাদরাসা খুলে দেওয়ার পর কেন্দ্রীয় কমিটির তাৎক্ষণিক বৈঠকের মাধ্যমেই গতবছরের পরীক্ষা ইত্যাদি বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

কুরবানীর আগে মাদরাসা খোলা হতে পারে কি না? এমন প্রশ্ন করা হলে মাওলানা অছিউর রহমান, জানান, সাব কমিটি তাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে কত দ্রুত মাদরাসা খুলে দেওয়ার প্রশাসনিক অনুমুতি গ্রহণ করা যায়। তবে সবকিছু পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করবে। হেফজ বিভাগ খুলে দেওয়াতে অনেকের আশা জাগছে হয়ত দ্রুতই কিতাব বিভাগও খুলে দেওয়া হতে পারে।

মাদরাসাগুলোর কুরবানীর চামড়া গ্রহণ ইত্যাদি বিষয়ে আজকের বৈঠকে কোনো আলোচনা হয়েছে কি না জানতে চাইলে হাইআতুল উলয়ার দপ্তর সম্পাদক জানান, বিষয়টি নিয়ে দায়িত্বশীলরা ভাবছেন। তবে এটাও পরিস্থিতির উপরই নির্ভর করছে বলে জানান মাওলানা অছিউর রহমান।

বিজ্ঞাপন