আয়া সোফিয়া মসজিদ নিয়ে শুরু হল পশ্চিমাদের গা জ্বলুনি

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: ইস্তান্বুলের বিখ্যাত মসজিদ আয়া সোফিয়া দীর্ঘ ৮০ বছর জাদুঘর থাকার পর পুনরায় মসজিদে পরিণত করার ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট। এতেই গা জ্বলুনি শুরু হয়ে গেছে ইউরোপের বিভিন্ন খ্রিষ্টান দেশের।

গতকাল শুক্রবার তুরস্কের আদালত আয়া সোফিয়ার জাদুঘর থাকার কথা নাকচ করে দেওয়ার এক ঘণ্টা পর প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোয়ান সেটিকে মসজিদ করার ঘোষণা দেন। এরপরই শুরু হয়ে যায় পশ্চিমা দেশগুলোর নিন্দা।

বিজ্ঞাপন
মসজিদ করার ঘোষণায় নিন্দা জানিয়েছে রাশিয়ার অর্থোডক্স চার্চ। রাশিয়ার পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষের পররাষ্ট্র বিষয়ক কমিটির উপ-প্রধান ভ্লাদিমির ঝাবারভ তুরস্কের এই সিদ্ধান্তকে ‘ভুল’ পদক্ষেপ হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

এদিকে এই সিদ্ধান্তকে সভ্য বিশ্বে তুরস্কের উসকানি হিসেবে উল্লেখ করেছে গ্রিস। এক বিবৃতিতে গ্রিসের সংস্কৃতিমন্ত্রী লিনা মেন্ডনি বলেন, এরদোগান যে জাতীয়তাবাদ দেখালো… তা তার দেশকে ছয় শতাব্দী পিছনে নিয়ে গেল।

এছাড়া সাইপ্রাস তুরস্কের এই রায়ের কড়া নিন্দা জানিয়েছে। দেশটি আন্তর্জাতিক দায়বদ্ধতার প্রতি তুরস্ককে শ্রদ্ধা জানাতে আহ্বান করে।

সেই সঙ্গে ইউনেস্কো জানিয়েছে, তারা আয়া সোফিয়ার মর্যাদা পর্যালোচনা করে দেখবে। এজন্য তারা তুরস্ককে একটি সংলাপে বসার আহ্বান জানান।

কিন্তু সমালোচকদের এসব নিন্দা সমালোচনা উপেক্ষা করে এরদোগান ঘোষণা দিলেন, আগামী ২৪জুলাই জুমার নামাজের মাধ্যমে মসজিদটির আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হবে।