ভারতে নিষিদ্ধ চীনা অ্যাপে খোদ মোদির ফলোয়ার্স আড়াই লাখ!

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: কাশ্মিরের লাদাখে চীনা বাহিনীর হাতে অন্তত ২০ ভারতীয় সেনা নিহতের পর ভারতে ৫৯টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। শেয়ার ইট, টিকটক, ইউসি ব্রাউজার, উইচ্যাট ও উইবো-এর মতো জনপ্রিয় অ্যাপগুলোও রয়েছে এ তালিকায়। এর মধ্যে উইবো-তে খোদ ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির-ও অ্যাকাউন্ট রয়েছে। সেখানে তার প্রায় আড়াই লাখ ফলোয়ার্সও রয়েছে। মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজ।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতে যেমন টুইটারের জনপ্রিয়তা চীনে তেমনি উইবো-র জনপ্রিয়তা। চীনের মানুষদের সঙ্গে জনসংযোগ বৃদ্ধির লক্ষ্যেই উইবো-তে যোগ দেন মোদি। যোগ দেওয়া মাত্রই টুইটারের মতো সেখানেও বাড়তে থাকে তার ফ্যান-ফলোয়ার্স। উইবো-তে মোদি-র ফলোয়ার্স সংখ্যা দুই লাখ ৪০ হাজার।

বিজ্ঞাপন

ভারতে উইবো, উইচ্যাট নিয়ে বিতর্কের শুরু অবশ্য লাদাখ সংঘর্ষের পর থেকেই। ১৫ জুনের ওই সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় জওয়ান নিহতের পর ভারতে চীনবিরোধী মনোভাব মাথাচাড়া দিয়ে উঠে। এ ঘটনায় ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জারি করা বিবৃতি ও মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে মোদি-র বক্তব্য মুছে দেওয়া হয় চীনা অ্যাপগুলি থেকে। হিংসামূলক ও নিয়ম লঙ্ঘন করছে, এই অজুহাতে পোস্টগুলি ডিলিট করে দেয় অ্যাপ কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয় দিল্লি। শুধু অ্যাপ নিষিদ্ধ করাই নয়, ভারতের তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রেও চীনা সামগ্রী ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হচ্ছে।

সব মিলিয়ে দুই দেশের সীমান্তের উত্তেজনা এবার ভার্চুয়াল দুনিয়াতেও। ভারতের তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের দাবি, দেশটির নাগরিকদের বিভিন্ন তথ্য সুরক্ষিত রাখতেই চীনা অ্যাপগুলো নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কেননা এসব অ্যাপ থেকে মোবাইল ফোনে থাকা তথ্য চুরি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

বিজ্ঞাপন