ইসলাম বিরোধী অপশক্তির ব্যাপারে সবসময় সোচ্চার থাকতে হবে: আল্লামা বাবুনগরী

116

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব ও হাটহাজারী মাদরাসার সহযোগী পরিচালক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেছেন, ইসলামের আলোকোজ্জ্বল বাতিকে চিরতরে নিভিয়ে দিতে সূচনালগ্ন থেকেই ইসলাম বিরোধী অপশক্তি চতুরমুখী ষড়যন্ত্র করে আসছে। হক্ব-বাতিলের দ্বন্দ্ব আজ নতুন নয়। বাতিল যতই শক্তিশালী হোক না কেন হক্বের প্রকৃত শক্তির সামনে তা নিতান্তই দূর্বল।

গতকাল ১১ ই মার্চ বুধবার নোয়াখালী জামিয়া ওসমানীয়া চাটখিল ও জামিয়া হোসাইনিয়া মিরওয়ারিশপুর মাদরাসার পৃথক খতমে বুখারী ও দুআ মাহফিল অনুষ্ঠানে দাওরায়ে হাদীস সমাপনকারী ছাত্র ও আগত মুসল্লিদের নসিহতকালে এসব কথা বলেন তিনি।

আল্লামা বাবুনগরী বলেন,সম্প্রতি ” হিজাব পড়া কোনো ধর্মীয় অনুশাসন অথবা ধর্মীয় বিষয় নয়, বরং অপসংস্কৃতি ” বলে মন্তব্য করে চরম ধৃষ্টতা দেখিয়েছে মেনন। অনতিবিলম্বে মেননকে শরিয়তের অন্যতম বিধান পর্দা সম্পর্কে দেয়া এ বক্তব্য প্রত্যাহার করতে হবে। হিজাব (পর্দা) ইসলামের অন্যতম একটি ফরজ বিধান উল্লেখ জুনায়েদ বাবুনগরী আরও বলেন, একজন নারীর ইজ্জত আবরু রক্ষায় শরয়ি পর্দার বিকল্প নেই। একজন নারী শরয়ি পর্দা মতো চললে সমাজে ইভটিজিং, ধর্ষণ, নারী নির্যাতন ইত্যাদির ন্যায় অপরাধ ও অনৈকিতা থাকবে না। সমাজ হবে শান্ত ও সুশৃঙ্খল।

পর্দাহীনতার কারণেই আজ নারী নির্যাতন চরম আকার ধারণ করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, শিশু থেকে শুরু করে সত্তর বছরের বৃদ্ধাও আজ নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। শুধু নির্যাতন নয়; নির্যাতনের পর নির্মমভাবে হত্যাও করা হচ্ছে। এর মূল কারণ হলো- বেপর্দা, নির্লজ্জতা ও বেহায়াপনা। তিনি আরো বলেন,বর্তমানে কাফের কাদিয়ানি ফিতনা,হেযবুত তওহীদ ফিতনা সহ নাস্তিক-মুরতাদরা মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। তাই দেশীয়, আন্তর্জাতিক সকল ইসলাম বিরোধী অপশক্তির ব্যাপারে আমাদেরকে সদা সোচ্চার থাকতে হবে।