বোনকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ভাইকে ছাত্রলীগ নেতার মারধর

31

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: বরগুনার তালতলীতে এক স্কুল ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও তার সহযোগীরা ওই ছাত্রীর দুই ভাইকে মারধর করে আহত করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আহত এক ভাইকে গুরুতর অবস্থায় কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ওই ছাত্রীর পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কড়ইবাড়ীয়া টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণীতে অধ্যয়নরত ওই ছাত্রী। স্কুলে যাওয়া আসার পথে প্রায়ই কড়ইবাড়ীয়া ইউনিয়নের মনির গাজীর ছেলে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিলন গাজী (২১) বেশ কিছুদিন ধরে মোবাইল নম্বর চেয়ে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে তাকে উত্ত্যক্ত করছিল।

ওই স্কুলছাত্রী বিষয়টি তার পরিবারকে জানালে শনিবার সন্ধ্যার পর বড়ভাই শহিদুল ইসলাম তার খালাতো ভাই ইমাম হোসেনকে নিয়ে কড়ইবাড়ীয়া বাজারে মিলন গাজীর কাছে গিয়ে বিষয়টি বুঝিয়ে বলার চেষ্টা করেন। এসময় মিলন গাজী ক্ষিপ্ত হয়ে তার লোকজন নিয়ে শহিদুল ইসলাম ও ইমাম হোসেনের উপর অতর্কিত হামলা চালায়।

স্কুলছাত্রীর ভাই শহিদুল ইসলাম জানান, ‘আমার বোনকে প্রতিনিয়ত স্কুলে যাওয়া আসার পথে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল ছাত্রলীগ নেতা মিলন গাজী। বিষয়টি মিলন গাজীকে বুঝিয়ে বলতে গেলে সে আমাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে মারধর করে। এতে আমার ভাই ইমাম হোসেন গুরুতর আহত হয়ে কলাপাড়া হাসপাতালের পুরুষ ওয়ার্ডের ৯নং বেডে ভর্তি রয়েছে।’

মিলন গাজী এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘শহিদুল কয়েকদিন আগে ফেসবুকে আমার বিরুদ্ধে কিছু বাজে কমেন্ট করেছিল। এ নিয়ে আমাদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায় হাতাহাতি হয়। পরে আমি ওদের তাড়িয়ে দেই।’