সুলতানা কামালও বললেন, ভারত বাংলাদেশকে একটা বাজারের জায়গা বানিয়ে রেখেছে

98

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: বাংলাদেশের ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে যৌথ প্রকল্প বাস্তবায়নের নামে ভারত যেভাবে সব সুযোগ হাতিয়ে নিচ্ছে তা নিয়ে ভাবার সময় এসছে বলে মন্তব্য করেছেন মানবাধীকারকর্মী ও  সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক অ্যাড. সুলতানা কামাল। তিনি বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধে সহযোগিতার পরিবর্তে আজকে বাংলাদেশকে একটা বাজারের জায়গা বানিয়েছে তারা।

রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে আজ শনিবার সকালে সংবাদ সম্মেলনে সুলতানা কামাল এসব কথা বলেন। সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটি এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক বলেন, রামপালের প্রকল্প নির্মাতা ভারতীয় কোম্পানি এনটিপিসি। কোম্পানিটি ভারতে সব কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প স্থগিত করেছে। কারণ তারা তাদের কার্বন দায় কমাতে চায়। এর পরিবর্তে তারা গুজরাটে বিশ্বের বৃহত্তম সৌর শক্তি পার্ক স্থাপনের পরিকল্পনা করেছে। এর জন্য ২৫ হাজার কোপি রুপি বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তারা কয়েকটি রাজ্যের কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র অর্ধদিবস বন্ধ রাখার কথাও জানিয়েছে। অথচ ওই একই প্রতিষ্ঠান প্রবল গণআপত্তির মুখেও বাংলাদেশে কয়লা বিদ্যুৎ তৈরিতে পিছপা হচ্ছে না। এটি নিঃসন্দেহে একটি দায়িত্বজ্ঞানহীন ডাবল স্ট্যান্ডার্ড আচরণ।

সুলতানা কামাল বলেন, ভারতবিরোধী কোনো কথা বলছি না। স্বাধীনতার যুদ্ধের সময় ভারত আমাদের পাশে না দাঁড়ালে আমরা মুক্তিযুদ্ধটা যেভাবে শেষ করতে পেরেছি সেভাবে হয়তো পারতাম না। একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে এটা স্মরণ করি। আমি এ জন্য অবশ্যই ভারতের প্রতি কৃতজ্ঞ। কিন্তু আজকে বাংলাদেশকে একটা বাজারে কিংবা তাদের শিল্প কারখানার জায়গা বানিয়ে নিজেরা সব সুযোগ সুবিধা নিয়ে নেবে, এ বিষয়ে আমাদের এখন ভাবতে হবে।