বগুড়ায় যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্ত্রীর শরীরে এসিড নিক্ষেপ

14

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: যৌতুকের টাকা না পেয়ে গভীর রাতে জানালা দিয়ে স্ত্রীর শরীরে এসিড নিক্ষেপ করেছে পাষন্ড এক স্বামী। এতে অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন স্ত্রী রাখি। বগুড়ার শিবগঞ্জ পৌর এলাকার পলীপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, শিবগঞ্জ পৌর এলাকার পলীপাড়া গ্রামের দরিদ্র অটো চালকের মেয়ে মোছাঃ আফরিন আক্তার রাখিকে পছন্দ করে ১৪ বছর পূর্বে বগুড়া সদরের লাহিরীপাড়া ইউনিয়নের রোকনগাড়ী গ্রামের শুকুর আলীর ছেলে ট্রাক চালক মোঃ রাশেদুল ইসলাম বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকে স্বামী রাশেদুল যৌতুকের ২ লাখ টাকা দাবীতে স্ত্রী রাখিকে প্রায় সময়ে মারধর করতো। রাখি প্রাণ ভয়ে গত ৮ মাস যাবৎ ৩ সন্তান নিয়ে বাবার বাড়িতে চলে আসে।

গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে হঠাৎ রাশেদুল মোবাইলে রাখিকে তার ঘরের দরজা খুলতে বলে। রাখি রাজি না হলে ক্ষিপ্ত হয়ে রাত ১১টার দিকে শয়ন ঘরের জানালা দিয়ে এসিড নিক্ষেপ করে। সে সময় জানালার পর্দা থাকার কারণে পর্দা ও বিছানার চাদর পুড়ে যায়। রাখির শরীরে ছিটে ফোটা এসিড পরে অল্পের জন্য রক্ষা হয়। রাখির বাম হাত, পেটে ও পায়ে কয়েকটি জায়গায় ফোসকা পরে। রাতে রাখিকে শিবগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

রাখির বাবা আব্দুল আজিজ জানান, আমার মেয়েকে মেরে ফেলতে এসিড নিক্ষেপ করেছে।

এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক জানান, তার পায়ে ও হাতে ফোসকা লক্ষ্য করা গেছে। তিনি বলেন, এটা এসিড জাতীয় পদার্থ কি না তা পরীক্ষা করে দেখা হবে।

এ ব্যাপারে পৌর কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি জানার পর মেয়েটির চিকিৎসার সার্বিক সহযোগিতা করা হয়েছে।