৭ হাজার কেজি ভারি, ৭০০ ফুট লম্বা কেক দিয়ে মোদির জন্মদিন পালন

84

ইসলাম টাইমস ডেস্ক : ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মঙ্গলবার ৬৯ বছরে পা দিয়ে মহাসমারোহে জন্মদিন পালন করেছেন। জন্মদিনে কাটা এক কেকের ওজন ছিল ৭ হাজার কেজি এবং লম্বা ছিল ৭০০ ফুট।

মধ্যপ্রদেশে ভোপালের গোফা মন্দিরে ৬৯ ফুট লম্বা কেক কেটে জন্মদিন পালন করেছেন বিজেপি সমর্থকরা। ভোপালের মেয়র অলোক শর্মা এবং সাবেক নগর বিধায়ক সুরেন্দ্র নাথ সিং ওই অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

মোদির জন্মদিনের প্রাক্কালে তার নামে পুজো দিতে কল্যাণেশ্বরী মন্দিরে এসেছিলেন স্ত্রী যশোদাবেন। সকালেই টুইটে মোদিকে শুভেচ্ছা জানান পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

এছাড়া বারানসির সংকট মোচন মন্দিরে ভগবান হনুমানকে ১.২৫ কেজি ওজনের স্বর্ণের মুকুট উপহার দিয়েছেন ভক্ত অরবিন্দ সিং। প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের একদিন আগে অরবিন্দ সিং সোমবার মন্দিরে এই সোনার মুকুট উৎসর্গ করে তার প্রতিশ্রতি রক্ষা করেছেন বলে জানান। দ্বিতীয় মেয়াদে আবারও ক্ষমতায় ফিরলে তিনি ভগবান হনুমানের কাছে সোনার মুকুট দেয়ার ব্রত গ্রহণ করেছিলেন।

ওই সোনার মুকুটুটি জন্মদিনের এক দিন আগে ভগবান হনুমানের কাছে অর্পণ করায় তাদের বিশ্বাস, প্রধানমন্ত্রী মোদির এবং ভারতের ভবিষ্যৎ সোনার মতো জ্বলজ্বল করবে। তিনি জানান, স্বাধীনতার ৭৫ বছরে যা হয়নি মোদির আমলে ভারতে তা সম্ভব হয়েছে।

১৪ সেপ্টেম্বর থেকে ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনকে কেন্দ্র করে ‘সেবা সপ্তাহ’ পালন করছে বিজেপি। দলটি ঘোষণা করেছে যে সপ্তাহব্যাপী দেশজুড়ে একাধিক সামাজিক উদ্যোগ গ্রহণ করবেন।

জন্মদিনে মোদি দেখা করলেন তার মা হীরাবেনের সঙ্গে। চাইলেন আশীর্বাদ। গুজরাটের গান্ধিনগরের কাছে থাকেন হীরাবেন। সেখানেই মঙ্গলবার দুপুরে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী।

দ্বিপ্রাহরিক খাওয়া দাওয়া সারেন সেখানেই। ৯৮ বছরের হীরাবেন তার ছোট ছেলে পঙ্কজ মোদির সঙ্গে রাইসিন গ্রামে থাকেন। এদিন নবতিপর মায়ের সঙ্গে বসে দুপুরের খাওয়া সারতে দেখা গেল প্রধানমন্ত্রীকে।

খাওয়া দাওয়ার পরে প্রতিবেশীদের সঙ্গে দেখা করতে যান মোদি। গুজরাটে এক জনসভায় তিনি বলেছেন, সরদার বল্লভভাই প্যাটেলের দর্শনে অনুপ্রাণিত হয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করেছে। গুজরাটের সফলতা পুরো দেশের জন্য একটি মডেল হিসেবে বিবেচিত হওয়া উচিত বলেও জনসভায় মন্তব্য করেছেন মোদি।