আট মাসে সৌদি থেকে ফিরেছেন ৯ শতাধিক নির্যাতিত নারী কর্মী

71

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: গত আট মাসে (জানুয়ারি থেকে আগস্ট) সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরে এসেছেন ৯ শতাধিক নারী কর্মী। শারীরিক নির্যাতন, থাকার-খাওয়া এবং বেতন না পাওয়াসহ বিভিন্ন সমস্যার কারণে দেশে ফিরতে বাধ্য হচ্ছেন তারা। কিন্তু নির্যাতিত এসব নারীরা বাংলাদেশের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে অভিযোগ করলেও তারা তা আমলে নেয়নি। ফলে প্রতি মাসেই নির্যাতিত হয়ে দেশে ফেরা নারীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কুয়েত, ওমান, কাতার, বাহরাইন, লেবাননসহ বিশ্বের ১৮টি দেশে গৃহকর্মী হিসেবে যাচ্ছেন বাংলাদেশি নারীরা। এর মধ্যে সৌদি আরব থেকে প্রতি মাসেই নারীরা নির্যাতনের শিকার হয়ে দেশে ফিরছেন। দেশটির বাসা বাড়িতেই শুধু নয়, পরে তাদের দেশটির মক্তবে নিয়ে যাওয়া হলেও সেখানেও তারা শারীরিক নির্যাতনের শিকার হন বলে অভিযোগ করেন। দীর্ঘদিন দূতাবাসের সেফহোম রাখার পর তারপর নারীদের দেশে পাঠানো হয়। সেই সেফহোমও তাদের কাছে অনেক সময় নিরাপদ হয়ে উঠে না। যার প্রমাণও মিলেছে বিভিন্ন সময়।

সোমবার (০৯ সেপ্টেম্বর) প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, নারী কর্মীরা বিদেশে গিয়ে কাজ পাচ্ছেন ঠিকই কিন্তু কাজের পরিবেশ পাচ্ছেন না। কাজ করতে গিয়ে অনেকে যৌন নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। কিন্তু সেই অমানবিক নির্যাতনের গল্প দেশে আসলে অনেকে মুখ ফুটে বলতে পারছেন না। প্রতি মাসে সেখানকার বাসা বাড়িতে কাজ করতে গিয়ে অনেক নারী নির্যাতনের শিকার হয়ে বাংলাদেশে ফিরছেন। তারা দেশে ফিরে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে অভিযোগ করলেও তেমন আমলে নেয় না মন্ত্রণালয়। তারা বলেন, মেয়েরা সেখানে থাকতে না পেরে দেশে ফেরার জন্য এসব অভিযোগ করে।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের প্রবাস কল্যাণ ডেস্ক থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত আট মাসের পরিসংখ্যান বলছে, গত জানুয়ারি থেকে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত মোট ২৫ হাজার ২৯৩ জন কর্মী দেশে ফিরেছে। এর মধ্যে নারী কর্মী রয়েছে ৯৩২ জন। যার বেশির ভাগ সৌদি আরব থেকে নির্যাতনসহ নানা কারণে ফেরত এসেছে।

বেসরকারি সাহায্য সংস্থা ব্র্যাকের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী, গত দেড় বছরে সৌদি আরব থেকে প্রায় ২ হাজার নারী কর্মী দেশে চলে আসে নির্যাতনসহ নানা কারণে। এদের সবাইকেই আমরা সহায়তা দিয়েছি। গত সাড়ে তিন বছরে ৮ থেকে ৯ হাজার নারী কর্মী দেশে ফিরেছেন। এরমধ্যে ৬ থেকে ৭ হাজার ফিরেছেন সৌদি আরব থেকে। এবছর গত জানুয়ারি থেকে আগস্ট পর্যন্ত ৯০০ নারী কর্মী দেশে ফেরত এসেছে। এদের সবাই সৌদি আরব থেকে ফিরেছে।