‘মেধা, শ্রম ও কাজকে মূল্যায়নের জন্য পুরস্কার প্রদানের গুরুত্বও অনেক’

152

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: টঙ্গীতে বরেণ্য শিক্ষাবিদ প্রিন্সিপাল মাওলানা নূরুল হুদা রহ. স্মরণে ইসলামি সাহিত্য ও সাংবাদিকতা পুরস্কার প্রবর্তনের লক্ষ্যে আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বিজ্ঞাপন

বিশিষ্ট সাংবাদিক এম আবদুল্লাহর সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমীর আল্লামা নুর হোসাইন কাসেমি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, সাহিত্য ও সংস্কৃতির প্রভাব ব্যাপক। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় সংস্কৃতি মানুষকে নিয়ন্ত্রণ করে। তাই তথ্যের লড়াই ও সংস্কৃতির যুদ্ধটা গুরুত্বপূর্ণ। ইসলামের জন্য যারা কাজ করতে চান তাদের এ ময়দানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা উচিত। আর মানুষের মেধা, শ্রম ও কাজকে মূল্যায়নের জন্য পুরস্কার প্রদানের গুরুত্বও অনেক।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন মাওলানা আবদুর রব ইউসুফী, মুফতি ফয়জুল্লাহ, মুফতি মাসউদুল করীম, মাওলানা শরীফ মুহাম্মদ, মুফতি আবু তয়্যৈব, মাওলানা সৈয়দ শামছুল হুদা, মাওলানা আলী হাসান তৈয়ব এবং টঙ্গী এলাকার স্থানীয় উলামায়ে কেরাম।

সভায় বক্তারা বলেন, বরেণ্য শিক্ষাবিদ প্রিন্সিপাল মাওলানা নূরুল হুদা ছিলেন একজন কর্মোদ্যমী মানুষ। টঙ্গী গাজীপুরের ধর্মপ্রাণ মানুষের জন্য তার অবদান অনেক। তার স্মরণে সাংবাদিকতা পুরস্কার প্রবর্তনের উদ্যোগ কল্যাণকর একটি কাজ।

সভায় আলোচকদের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, ইসলামি অঙ্গনের দায়িত্বশীল সাহিত্য-সাংবাদিকতা বিষয়ে নজর দেওয়া উচিত।

এসময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত তরুন লেখকদের মানোত্তীর্ণ লেখাগুলোর মূল্যায়নের একটি প্রস্তাব পেশ করা হয়।

মতবিনিময় সভা শেষে নৈশ ভোজের আয়োজন করা হয়।