আজ তার হাতে উড়ল তেরঙ্গা-ভারতের জাতীয় পতাকা!

356

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: ২৫ বছর আগে বাংলাদেশ ত্যাগ করেছিলেন। আত্মগোপন করে পালিয়ে গিয়েছিলেন। ‘কোরআন পরিবর্তনের দাবি’সহ বহু বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন। তার নাস্তিক্যবাদী বক্তব্য ও লেখায় দেশ উত্তাল হয়ে উঠেছিল। দেশ ত্যাগের পর বিভিন্ন দেশে থেকেছেন। তবে এখন তার ঠিকানা ভারত। দিল্লিতেই তার বসবাস। তবে নিরাপত্তার ঘেরাটোপে।  ভারতকেই তিনি নিজের ঘর বলে গ্রহণ করেছেন। তিনি তসলিমা নাসরিন। কারো কাছে বিতর্কিত, কারো কাছে ধিকৃত। বৃহস্পতিবার এই নারী ভারতের স্বাধীনতা দিবসে উড়িয়েছেন ভারতের তেরঙ্গা-জাতীয় পতাকা। ভারতবাসীকে জানিয়েছেন স্বাধীনতার শুভেচ্ছা।

দেশে থাকতে তার পক্ষে দাঁড়িয়েছিলেন ‘মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষ’ শিবিরের বলে পরিচিত বহু লেখক-কবি। তার ইসলামবিরোধী বক্তব্যের প্রতিবাদকারীদের নামে জুড়ে দেওয়া হয়েছিল ‘স্বাধীনতা বিরোধী’ ও ‘দালাল’ তকমা। সেই তিনিই আজ ভারতের জাতীয় পতাকা উড়িয়ে স্বাধীনতার শুভেচ্ছা জানালেন। আবার ঘটা করে ফেসবুকে ছবি পোস্ট করে সে কথা সবাইকে জানিয়েও দিলেন।

ফেসবুকে ছবি পোস্ট করে দেশত্যাগী এই নারী লিখেছেন, ‘আজ ১৫ আগস্ট সকালে বাড়ির ছাদে পতাকা উড়ালাম। বৃটিশের অত্যাচার থেকে স্বাধীনতা পাওয়ার পতাকা। আমরা কি স্বাধীনতার মূল্য বুঝি? অধিকাংশই তো বুঝি না। আমাদের শাসকেরা সেই শাসকদেরই অনুকরণ করেন, যাদের বিরুদ্ধে আমরা একসময় যুদ্ধ করেছিলাম। তারপরও স্বাধীনতার পতাকা উড়াও। শোষণ আর বঞ্চনার বিরুদ্ধে যে যার ঝান্ডা উড়াও।’

তবে তার দেশ ত্যাগের ঘটনাকে ‘বিতাড়ন’ ও ‘নির্বাসন’  হিসেবেই প্রকাশ করতে পছন্দ করেন তিনি। কিছুদিন আগেই একটি পোস্টে তিনি লিখেছিলেন, ‘৮ আগস্ট, ১৯৯৪। আমাকে দেশ থেকে বের করে দেওয়া হয়েছিল। আজ ৮ আগস্ট ২০১৯। মাঝখানে ২৫ বছর চলে গেছে। আমি এখনও দেশহীন, গৃহহীন।

এখন দেখা যাচ্ছে, ভারতই তার নতুন ঘর, নিজের দেশ। সে দেশের জাতীয় পতাকা উড়াতে তাই ভোলেননি ১৫ আগস্টে। বাড়ির ছাদেই উড়িয়েছেন ভারতের জাতীয় পতাকা।