ঈদে একটানা বিদ্যুৎ সরবরাহের নির্দেশ

21

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: আসন্ন ঈদুল আজহার ছুটিতে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সরবরাহ করতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

এ সময় তিনি বলেন, বৈশ্বিক পরিবর্তনের সঙ্গে সমন্বয় করেই দেশের জ্বালানি নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হচ্ছে। নিজস্ব গ্যাস অনুসন্ধান ও উত্তোলন বৃদ্ধি এবং নিরবচ্ছিন্ন জ্বালানি সরবরাহের চ্যালেঞ্জটি সরকার সাফল্যের সঙ্গে মোকাবিলা করছে।

শুক্রবার (৯ আগস্ট) রাজধানীর পেট্রোবাংলায় আয়োজিত ‘জাতীয় জ্বালানি নিরাপত্তা দিবস-২০১৯’ উপলক্ষে এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা গুলো বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ১৯৭৫ সালের ৯ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শেল ওয়েল থেকে ৫টি গ্যাসক্ষেত্র ক্রয় করে দেশের জ্বালানি খাতকে সুসংহত করেন। ক্রয়কৃত গ্যাসক্ষেত্র গুলো হলো- তিতাস, হবিগঞ্জ, রশিদপুর, কৈলাশটিলা ও বাখরাবাদ। মোট উৎপাদিত গ্যাসের ৩৫ ভাগ এখনো এই পাঁচটি ক্ষেত্র থেকে আসছে।

তিনি জ্বালানি খাতে নিযুক্ত কর্মকর্তাদের পেশাদারিত্বের ওপর জোর দিয়ে বলেন, ভবিষ্যতে জ্বালানি অর্থনীতির কাঠামো বিশ্লেষণ করে পরিকল্পনা করা উচিত।

ওই সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, পেট্রোবাংলার মহাব্যবস্থাপক শাহনেওয়াজ পারভেজ। এ সময় তিনি বিগত ১০ বছরের অর্জন, ভবিষ্যতের চাহিদা, রোডম্যাপ ও চ্যালেঞ্জ গুলো তুলে ধরেন।

এ সময় সেমিনারে তেল-গ্যাস অনুসন্ধান ও কয়লা উত্তোলনের ওপর গুরুত্ব দেন এনার্জি অ্যান্ড পাওয়ার পত্রিকার সম্পাদক মোল্লাহ আমজাদ।

প্যানেল বক্তব্যে স্রেডার সদস্য অতিরিক্ত সচিব সিদ্দিক জোবাইর জ্বালানি সাশ্রয়ের ওপর গুরুত্ব দিয়ে বলেন, জ্বালানি পরিকল্পনার সঙ্গে জ্বালানির ভৌত উপাদান, পরিবেশ ও আর্থিক বিষয়াবলীর সমন্বয় থাকা প্রয়োজন।