ওলামা-মাশায়েখদের উদ্দেশে নৈশভোজে যা বললেন রাষ্ট্রপতি

870

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: সরকারিভাবে হজ করতে যাওয়া ওলামা-মাশায়েখদের বিশেষ দলের উদ্দেশ্যে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেন, ‘বাংলাদেশের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে আপনারা বাংলাদেশকে তুলে ধরবেন। বাংলাদেশি হাজি বা কোনো নাগরিকের আচার-আচরণ, কথা-বার্তায় কেউ যাতে কষ্ট না পায়, আমাদের সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণার সৃষ্টি না হয়, সে দিকে বিশেষ খেয়াল রাখবেন।’

হজযাত্রীদের পরামর্শ ও দিক নির্দেশনা দিতে রাষ্ট্রীয় খরচে হজ করতে যাওয়া ওলামা-মাশায়েখদের সঙ্গে শনিবার (৩ জুলাই) বঙ্গভবনের দরবার হলে এক নৈশভোজে রাষ্ট্রপতি এসব কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতির বিশেষ আমন্ত্রণে হজগামী ৫৮ জন বিশিষ্ট ওলামা মাশায়েখ বঙ্গভবনে আয়োজিত এ নৈশভোজে অংশ নিয়েছিলেন।

সূত্র মতে, বাদ মাগরিব ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ নেতৃত্বে ওলামা মাশায়েখদের বিশিষ্ট এ দল রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাত করেন। পরে রাষ্ট্রপতি আলেমদের সঙ্গে এশার নামাজ জামাতে আদায় করেন।

রাষ্ট্রপতির আমন্ত্রণে ওলামা মাশায়েখদের বিশেষ এ দলে দেশের বিভিন্ন বড় মাদরাসার প্রিন্সিপাল, মসজিদের খতিব, কওমি মাদরাসা ভিত্তিক শিক্ষাবোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া ও আল হাইয়াতুল উলইয়ার লিল জামিয়াতিল কওমি বাংলাদেশ-এর একাধিক সদস্য ও তাদের ছেলেরা অন্তর্ভুক্ত উপস্থিত ছিলেন।

এসময় আল হাইয়াতুল উলইয়ার কো-চেয়ারম্যান আল্লামা আশরাফ আলী, পটিয়া মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুল হালিম বোখারী, গওহরডাঙ্গা মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা রুহুল আমীন, ঢাকার গেন্ডারিয়ার মাদদরাসা বায়তুল উলুমের প্রিন্সিপাল মাওলানা জাফর আহমাদ, শোলাকিয়া ঈদগাহের ইমাম মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ প্রমুখ ওলামায়ে কেরাম সংক্ষিপ্ত বক্তব্য প্রদান করেন।