নেদারল্যান্ডসে আজ থেকে বোরকা নিষিদ্ধের বিতর্কিত আইন চালু

62

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: বোরকা নিষিদ্ধের বিতর্কিত আইন পাস করা আরো কিছু ইউরোপীয় দেশের তালিকায় যোগ দিলো নেদারল্যান্ডস৷ ওইসব দেশের কেউ কেউ মনে করেন বোরকা নারী নিপীড়নের প্রতীক, আবার কেউ কেউ এমন সিদ্ধান্তকে দেখছেন ধর্মীয় স্বাধীনতার ওপর হস্তক্ষেপ হিসেবে৷ তবে, বেশ কয়েকটি শহর-কর্তৃপক্ষ, হাসপাতাল, গণপরিবহন সংস্থা এমনকি পুলিশও এই আইন বাস্তবায়নে অস্বীকৃতি জানিয়েছে৷

বৃহস্পতিবার ( ১ আগস্ট) থেকে কার্যকর হওয়া এই আইনে স্কুল, হাসপাতাল, সরকারি স্থাপনা এবং গণপরিবহনে ‘মুখ ঢাকা’ পোশাকের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে৷ ২০০৫ সালে প্রথম এই আইনের প্রস্তাব করা হয়, ব্যাপক তর্ক-বিত্রক ও আলোচনার পর ২০১৫ সালে এই আইন পাস করা হয়, ২০১৮ সালের জুন মাসে দেশটির সিনেট এ আইনের অনুমোদন দেয়৷

কেউ বোরকা পরে এসব স্থানে ঢুকতে চাইলে কর্তৃপক্ষ তাদেরকে মুখ দেখাতে বলতে পারবেন৷ কেউ এতে আপত্তি জানালে তাদের সেসেব স্থানে ঢুকতে দিতে অস্বীকৃতি জানাতে পারবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ৷ নির্দেশ অমান্যে ১৫০ ইউরো (প্রায় ১৫ হাজার টাকা) জরিমানাও করা হতে পারে৷

অবশ্য শুধু বোরকা নয়, পুরো মুখ ঢাকা হেলমেট বা বালাক্লাভার ক্ষেত্রেও এ নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য৷

এই আইন কার্যকরের আগে দেশের কর্তৃপক্ষকে ব্যাপক বিরোধীতার মুখোমুখি হয়েছে৷ বেশ কয়েকটি শহর কর্তৃপক্ষ, হাসপাতাল, গণপরিবহন সংস্থা এমনকি পুলিশও এই আইন বাস্তবায়নে অস্বীকৃতি জানিয়েছে৷

ইউরোপে কট্টর ডানপন্থি রাজনতির চর্চা বাড়ার পর থেকে বোরকা নিয়ে ইউরোপ জুড়ে বিধিনিষেধ শুরু হয়েছে।

ইউরোপের প্রথম দেশ হিসেবে ফ্রান্স প্রায় ১০ বছর আগে মুখ ঢাকা পোশাক নিষিদ্ধ করে৷ গত বছর জাতিসংঘের একটি কমিটি ফ্রান্সের এই আইন মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে বলে মত প্রকাশ করলেও ফ্রান্স তার অবস্থান থেকে সরে আসেনি৷

এরপর ফ্রান্সের অনুসরণে অনেক দেশেই চালু করা হয়েছে এমন আইন৷ ব্যাপক বিরোধীতা সত্ত্বেও ডেনমার্কে এক বছর ধরে চালু রয়েছে এমন নিষেধাজ্ঞা৷ চলতি বছরের শুরুতে অস্ট্রিয়া প্রাইমারি স্কুলে মুসলিম মেয়েদের মাথা ঢাকার স্কার্ফ নিষিদ্ধ করে আইন পাস করে৷ ২০১৭ সাল থেকে দেশটিতে মুখ ঢাকা পোশাকে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে৷

সরকারি চাকরিতে কর্মরত অবস্থায় এমন পোশাক পরায় নিষেধাজ্ঞা রয়েছে জার্মান রাজ্য হেসেতেও৷

মাস ছয়েক আগে উত্তর জার্মানির কিয়েল বিশ্ববিদ্যালয় পুরো মুখ ঢাকা কোনো পোশাক পরে আসার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা দেয়৷ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনে ‘মুখভঙ্গি গুরুত্বপূর্ণ’, এমন যুক্তি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷

তবে ইউরোপের বেশ কিছু রাজনীতিবিদ বোরকা নিষিদ্ধ করে ধর্মীয় স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করার কারণে সমালোচনায় মুখর হয়েছিলেন৷

সূত্র: এএফপি, ডিডাব্লিও