মেনন বললেন, হিজাব সৌদি সংস্কৃতি, আমাদের সংস্কৃতি নয়

184

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: হিজাবকে সৌদি সংস্কৃতি উল্লেখ করে বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেছেন, আমরা হিজাব কেন পরবো? হিজাব তো আমাদের দেশের সংস্কৃতি নয়।

রোববার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আন্তর্জাতিক গৃহশ্রমিক দিবস উপলক্ষে জাতীয় গার্হস্থ্য নারী শ্রমিক ইউনিয়ন আয়োজিত ‘কর্মস্থলে নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধে আইএলও কনভেনশন প্রণয়ন ও বাস্তবায়নে গৃহশ্রমিকের অধিকার, মর্যাদা ও নিরাপত্তা নিশ্চিতকল্পে আইন চাই’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাশেদ খান মেনন বলেন, ‘এখন এমন অবস্থা হয়েছে যে, এসব কাঠমোল্লাদের ব্যাপারে যা আর বলার না। এখন নাকি শাড়ি পরে নামাজ পড়া জায়েজ নয়, এটা হচ্ছে আমাদের দেশের পরিস্থিতি! আমাদের মা জননীরা শাড়ি পরে নামাজ পড়েছেন, আব্রু রক্ষা করেছেন। তাহলে আপনারা কেন সব উল্টাপাল্টা কথা বলবেন? হিজাব তো আর আমাদের দেশের সংস্কৃতি নয়। এটা সৌদি আরবের তাহলে এটা আমরা কেন পরবো? এমন হলে তো আমাদের মা, দাদী কেউ বেহেশতে যাবেন না।’

রাসুল (সা.) বলেছেন, মায়ের পায়ের তলায় সন্তানের বেহেশত। তাই যদি হয় তাহলে মেয়েদের সম্পর্কে হুজুররা এসব উল্টোপাল্টা কথা কেন বলবেন? বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন।

নারী অধিকার রক্ষায় আরও বেশি জোর দিয়ে এগিয়ে আসার আহবানও জানান তিনি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে লুৎফুন্নেসা খান বিউটি এমপি বলেন, ‘আমাদের সমাজে ঘরে এখনো এমন অবস্থা যে, সারাদিন কাজ করার পরও একজন গৃহিণীকে শুনতে হয়, সারাদিন বাড়ি বসে কি করেছো?’

সভায় সকলের উদ্দেশ্যে তিনি আরও বলেন, ‘গৃহকর্মীদের গায়ে হাত দেবেন না। তাদের সাথে ভালো ব্যবহার করুন। তিনি গৃহশ্রমিকদের যৌন হয়রানি বন্ধে একত্রিত হওয়ার আহবান জানান তিনি।

এ্যাড. জোবাইদা পারভীনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অংশ নেন ড. ওয়াজেদ ইসলাম, আবুল হোসাইন, মোস্তফা আলমগীর রতন,মুর্শিদা আক্তার নাহা প্রমুখ।