প্রশাসনের দুঃখপ্রকাশ, ময়মনসিংহে ইমামকে হেনস্থা করার প্রতিবাদে ডাকা মানববন্ধন স্থগিত

1349
ছবি ফেসবুক থেকে নেওয়া

ইসলাম টাইমস প্রতিবেদন: বিতর্কিত সাদপন্থীদের একটি জামাতকে মসজিদ থেকে চলে যেতে বলায় ময়মনসিংহের কাঁচিঝুলি সাহেব কোয়ার্টার জামে মসজিদের ইমাম মুফতী সাদিকুর রহমানকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে হেনস্থা করার প্রতিবাদে ডাকা মানববন্ধন স্থগিত করা হয়েছে। আলেমদের কাছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুঃখপ্রকাশ এবং হেনস্থাকারীদের বিচারের আশ্বাস পাওয়ার প্রেক্ষিতে মানববন্ধন স্থগিত করা হয়েছে বলে জানা যায়।

ময়মনসিংহের জামিআ আরাবিয়া মাখযানুল উলূম মাদরাসার নায়েবে মোহতামিম মাওলানা মুহাম্মদ ইসলাম টাইমসকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

মাওলানা মুহাম্মদ জানান, কিছুদিন যাবত বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে ময়মনসিংহ জেলা মারকাযে সাদপন্থীরা জোড় অনুষ্ঠানের জন্য তৎপর হতে শুরু করে। এর প্রেক্ষিতে স্থানীয় উলামা ও দীনদার মহলে অসন্তুষ্টি দেখা দেয়। সর্বশেষ গতকাল বৃহস্পতিবার শহরের সাহেব কোয়ার্টার মসজিদে এলাকার মুসল্লিদের অনুমতি ছাড়াই সাদপন্থীদের একটি জামাত গেলে ইমাম মুফতি সাদিকুর রহমান তাদের চলে যেতে বলেন। তারা তখন প্রশাসনের কাছে ইমামের বিরুদ্ধে নালিশ করে। পরে থানা থেকে পুলিশ এসে সাহেব কোয়ার্টার মসজিদের ইমাম সাহেবকে ধরে নিয়ে যায় এবং তিনঘন্টা পর্যন্ত জেরা করে তাকে ছেড়ে দিলেও তার সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করা হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে শহরের আলেম সমাজ ও তাবলীগী সাথীরা দীনদার মানুষদের নিয়ে জুমআর নামাযের পর মানববন্ধনের ডাক দেন।

জানা যায়, আলেমদের ডাকা মানববন্ধনের কথা জানতে পেরে প্রশাসন থেকে আলেমদের সাথে যোগাযোগ করা হয়। ইমামকে হেনস্থা করার জন্য দুঃখ প্রকাশ এবং থানায় যারা ইমামের সাথে অসৌজন্য ব্যবহার করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া ও মারকাযে জোড়সহ এতায়াতীদের যাবতীয় কর্মকাণ্ড বন্ধ করে দেওয়ার আশ্বাস দিলে মানববন্ধন স্থগিত ঘোষণা করা হয়।

তবে মানববন্ধন স্থগিত করা হলেও জুমআর নামাযের পর বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষিপ্তভাবে প্রতিবাদ করা হয়। প্রায় দুই হাজার মানুষ সেই প্রতিবাদে অংশ নেয়।