‘প্রগতিশীল’ দেশ সুইজারল্যান্ডেও নেই নারীদের জন্য মজুরি সমতা

39

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: বিশ্বের যে সমস্ত রাষ্ট্র নারী অধিকারের গালভরা কথা বলে তাদের অন্যতম প্রগতিশীল দেশ হিসেবে পরিচিত সুইজারল্যান্ড।প্রগতিশীল অন্যান্য দেশের মতো এখানেও নেই নারীদের জন্য মজুরির সমতা। আজ শুক্রবার তাই কাজ বন্ধ করে সুইজারল্যান্ডের রাস্তায় বিক্ষোভ করছেন নারীরা। সমমজুরির দাবিতে প্রথমবার দেশজুড়ে ধর্মঘট পালিত হওয়ার প্রায় তিন দশক পর আজ আবার নারীদের আন্দোলন শুরু হয়েছে।

শুক্রবার দিনব্যাপী নানা ধরনের আয়োজনের মাধ্যমে বিক্ষোভ প্রদর্শনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।আন্দোলনটির সক্রিয় কর্মী মেরি মেট্রেইলার বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘আমাদের মূল উদ্দেশ্য নারীবাদী আন্দোলনের মাধ্যমে সারা দেশ অচল করে ফেলা। শুধু নারীদের আন্দোলন হবে এটি।’

কর্মক্ষেত্রে নারীদের ওপর সহিংসতা একেবারেই মেনে নেবেন না আন্দোলনকারীরা। যথাযথ সম্মান, মজুরিসহ জাতীয় পর্যায়ে ন্যূনতম বেতন চালু করার দাবি জানাবেন তাঁরা।

সুইস সংবিধানে লিঙ্গ–নির্বিশেষে সবার জন্য সমান মজুরির অধিকার অন্তর্ভুক্ত করা হয় ১৯৮১ সালে। এর ১০ বছর পর, অর্থাৎ ১৯৯১ সালের ১৪ জুন প্রায় ৫ লাখ নারী কর্মক্ষেত্র বা ঘর থেকে বেরিয়ে অসমতার বিরুদ্ধে আন্দোলনে অংশ নেন। এ ঘটনার তিন দশক পরে শুক্রবারের কর্মসূচি পরিকল্পনাকারীরা জানিয়েছেন, ব্যাপারগুলোতে খুব বেশি পরিবর্তন আসেনি, সমতার ক্ষেত্রে অবস্থান এখনো নড়বড়ে।

সুইস নারীদের আয়ের পরিমাণ এখনো পুরুষদের চেয়ে গড়ে ২০ শতাংশ কম। জাতীয় পরিসংখ্যান অফিসের হিসাব অনুযায়ী, সমযোগ্যতাসম্পন্ন নারী-পুরুষের ক্ষেত্রে বেতনের পার্থক্য গড়ে ৮ শতাংশ।