‘বন্ধ করে দিন এক মাসের জন্যে এই টেলিভিশন!’

178

মুফতি সাইয়েদ আদনান কাকাখেইল।।

বর্তমান যুগে সময় নষ্ট করার একটা অন্যতম মাধ্যম টেলিভিশন। এতে দুনিয়ার পাপাচার, অশ্লীলতা, বেহায়পনা, নোংরামি, নাচগান ইত্যাদি কার্যকলাপ সব সময় চলতেই থাকে। এসব জিনিসের সাথে রমযানের কী সম্পর্ক? বন্ধ করে দিন এক মাসের জন্যে  এই টেলিভিশন।

বিশ্বাস করুন, এক মাস খবর না দেখলে আপনার কোনো ক্ষতি হবে না। বরং লাভই হবে। এক মাস যদি আপনি খবর না দেখেন তাহলে আপনার জীবনে এর মন্দ প্রভাব নয়, ভাল প্রভাব পড়বে। আপনার দুশ্চিন্তা অনেকটা কমে যাবে। আজকাল দেশ-বিদেশের দরকারি অদরকারি নানা খবর এবং খবরের অতিরঞ্জিত উপস্থাপনা আমাদের জীবনে অস্থিরতা আরও বাড়িয়ে তুলেছে।

আপনি বলতে পারেন, টিভি দেখা বন্ধ করলে খবর রাখবো কিভাবে? আমার কথা হল, আপনি যদি সংবাদপত্রের লোক হন, আপনাকে যদি কলাম লিখতে হয়, প্রতিবেদন তৈরি করতে হয়, সাংবাদিকতা যদি আপনার পেশা হয়, খবরাখবরের সাথে যদি আপনার জীবিকার সম্পর্ক থাকে, তাহলে ভিন্ন কথা। কিন্তু সংবাদ যদি আপনার পেশা না হয়, তাহলে এক মাসের জন্য টিভি বন্ধ রাখলে আপনার কোনো ক্ষতি হবে না।

বিশেষত মা-বোনদেরকে  রমজানে টেলিভিশনে সময় দিতে দেখা যায় বেশী।  তারা বিভিন্ন ইসলামী প্রোগ্রাম দেখার জন্য টেলিভিশনে সময় দেন। জরিপে দেখা যায়, রমজানের  80 পার্সেন্ট ভিউয়ার  মহিলারা। কিন্তু মনে রাখবেন, টিভির মাধ্যমে দ্বীন শেখা যায় না। তাকওয়া, তাহারাত, আল্লাহর সাথে সম্পর্ক এগুলো আপনি টিভি দেখে কিভাবে অর্জন করবেন?

(মুফতি সাইয়েদ আদনান কাকাখৈল পাকিস্তানের জামিয়াতুর রশীদের একজন  উস্তায এবং  একজন বিশিষ্ট মেধাবী তরুণ আলেম। তার কয়েক মিনিটের ভিডিও ক্লিপ থেকে বয়ানটি পত্রস্থ করেছেন- এনাম হাসান জুনাইদ।)