ভেঙ্গে ফেলা প্রতিটি রোজার জন্য কি আলাদা কাফফারার রোজা রাখতে হবে?

192

প্রশ্ন: আমি ধার্মিক পরিবারের সন্তান হওয়ায় বালেগ হওয়ার পর থেকেই প্রতি রমযানে রোযা রাখি। কিন্তু শুরুতে বন্ধুদের প্ররোচনায় গোপনে পানাহার করে বেশ কিছু রোযা ভেঙে ফেলেছিলাম। এখন সেগুলোর কাযা-কাফফারা আদায় করতে চাই। শুনেছি বিনা ওজরে একটি রোযা ভাঙলে ৬০ টি রোযা কাযা হিসেবে রাখতে হয়। তাহলে কি আমাকে প্রত্যেক রোযার জন্য ৬০ টি করে রোযা রাখতে হবে? এ ব্যাপারে কোনো ছাড় আছে কি? শরীয়তের সমাধান জানানোর অনুরোধ রইল।

উত্তর: প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে যতগুলো রোযা রেখে বিনা ওজরে ভেঙে ফেলেছেন সেগুলোর জন্য একটি কাফফারা আদায় করলেই যথেষ্ট হবে। প্রত্যেকটির জন্য ভিন্ন ভিন্ন কাফ্ফারা আদায় করা লাগবে না। তবে প্রত্যেকটির জন্য একটি করে রোযা কাযা করতে হবে। আর মনে রাখতে হবে, শরয়ী ওজর ছাড়া ইচ্ছাকৃত রমযানের রোযা ছেড়ে দেওয়া অনেক বড় গুনাহ। হযরত আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ রা. বলেন-

مَنْ أَفْطَرَ يَوْمًا مِنْ رَمَضَانَ مُتَعَمِّدًا مِنْ غَيْرِ سَفَرٍ ، وَلاَ مَرَضٍ لَمْ يَقْضِهِ أَبَدًا وَإِنْ صَامَ الدّهْرَ كُلّهُ.

যে ব্যক্তি সফর বা অসুস্থতা ছাড়া রমযানের একটি রোযাও ইচ্ছাকৃত ছেড়ে দিবে সে পুরো জীবন রোযা রাখলেও ওই রোযার হক আদায় হবে না। (মুসান্নাফে ইবনে আবী শাইবা, বর্ণনা ৯৮৯৩)

-কিতাবুল আছল ২/১৫৩; আলমাবসূত, সারাখসী ৩/৭৫; ফাতাওয়া বায্যাযিয়া ১/১০৩; মারাকিল ফালাহ পৃ. ৩৬৭; আদ্দুররুল মুখতার ২/৪১৩

[ সৌজন্যে: ফতোয়া বিভাগ, মারকাযুদ্দাওয়া আলইসলামিয়া ঢাকা]