বিএনপিকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে: মির্জা ফখরুল

8

গুড়া-৬ (সদরে) আসনে বিএনপি, ২০ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নির্বাচনি প্রচারণা চালানোর সময় বলেছেন, ‘সরকারের এখনও বোধোদয় হয়নি। তারা রাষ্ট্রযন্ত্র সঙ্গে নিয়ে জোড় করে ক্ষমতায় থেকে জনগণকে ভোট দিতে কেন্দ্রে যাওয়া থেকে বিরত রাখতে চাইছে। হামলা-মামলা অব্যাহত রয়েছে। আমাদের সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে। কিন্তু জনগণ আমাদের সঙ্গে আছে। তাই আমরা সব বাধা উপেক্ষা করে শেষদিন পর্যন্ত মাঠে থাকবো।’

বিজ্ঞাপন

বগুড়ায় দুই দিনের নির্বাচনি প্রচারণার শেষদিন শনিবার (১৫ ডিসেম্বর) সকালে বগুড়া উডবার্ন পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

ধানের শীষে ভোট চেয়ে তিনি বলেন, ‘আপনাদের একটি ভোট সবকিছু পাল্টে দিতে পারে। দেশনেত্রী খালেদা জিয়া জেল থেকে মুক্ত হতে পারেন এবং তারেক রহমান বিদেশ থেকে ফিরতে পারেন। মানুষ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারবে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘মানুষ পরিবর্তন চায়। বগুড়ার সাতটি আসনে ধানের শীষের জোয়ার উঠেছে। জনগণ তাদের প্রিয় মানুষকে (খালেদা) মুক্ত করতে রাস্তায় নেমে এসেছেন। আর জনগণ এগিয়ে এলে কোনও অপশক্তি টিকে থাকতে পারবে না। নির্বাচন কমিশন অসহায়, ঠুঁটোজগন্নাথে পরিণত হয়েছে। তারা সরকারের নির্দেশ পালন করে চলেছে। লেভেল প্লেইং ফিল্ড সৃষ্টি করতে পারেনি। প্রশাসন নিরপেক্ষ নয়। ভোটে জেতার ব্যাপারে সরকারকে সহায়তা করছে।’

তিনি বলেন, ‘দুঃখের সঙ্গে বলতে বাধ্য হচ্ছি সরকার তফসিল ঘোষণার পর গ্রেফতার বন্ধ করার অঙ্গীকার করলেও কথা রাখেনি। এখনও গ্রেফতার, হামলা ও নির্যাতন বন্ধ হয়নি। আমি ছাড়াও ড. কামাল হোসেন, আ স ম আবদুর রবের মতো জাতীয় নেতাদের ওপর হামলা হয়েছে।’